1. admin@ictlbd.org : admin :
  2. bictl.bd@gmail.com : মোঃ রুমান মাহমুদ প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি : মোঃ রুমান মাহমুদ প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি
  3. nipuriad56@gmail.com : Nipu riad :
  4. lalapala33@hotmail.com : rcsdulcie715391 :
  5. www.mdshaharulislamshahin@gmail.com : Md Shaharul Islam : Md Shaharul Islam
  6. sh.chamon@gmail.com : Sabbir Hasan : Sabbir Hasan
  7. bekarzeka@outlook.com : wolfgangmccurry :
শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৫:২৬ পূর্বাহ্ন
শিরনামঃ
বঙ্গবন্ধুর ও আওয়ামী লীগের গণমুখী নিয়মতান্ত্রিক রাজনীতি নওগাঁয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ১ হাজার ৫শ ৫৮টি গৃহহীন পরিবারকে গৃহ প্রদান সশস্ত্র বাহিনী দিবস’ উপলক্ষে ঢাকা সেনানিবাসের শিখা অণির্বানে পুষ্পস্তবক অর্পণ: প্রধানমন্ত্রী দেশ গড়তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার একজন আর্কিটেক্ট অপপ্রচারের জবাব দিতে আহবান : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাধারণ মানুষ আতঙ্কে নেই, বরং সন্ত্রাসী, অনিয়মকারী, দুর্নীতিবাজ এবং বিএনপির আশ্রয়-প্রশ্রয়দাতারা আতঙ্কে আছে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য বাংলাদেশ কি প্রস্তুত, Bangladesh will be the key leader of 4th Industrial Revolution  টাঙ্গাইল-৭ আসনের সংসদ সদস্য একাব্বর হোসেনের মৃত্যুতে আইসিটি প্রতিমন্ত্রীর শোক অদম্য অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশের অর্থনীতি বিশ্ব সম্প্রদায়ের জন্য অবদান রাখতে চাই: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে পেঁয়াজের সংরক্ষণে ও সংরক্ষণকাল বৃদ্ধিতে ডাচ প্রযুক্তি ও দক্ষতাকে কাজে লাগানো হবে প্রধানমন্ত্রী ও আইসিটি উপদেষ্টা অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হওয়ায় ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়াঃ একজন নিরহংকার সাদা মনের মানুষ বাংলাদেশের আইটি খাত একসময় পোশাক রপ্তানি খাতকে ছাড়িয়ে যাবে: সজিব ওয়াজেদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরেছেন : শুভেচ্ছা ‘উইটসা এমিনেন্ট পার্সনস অ্যাওয়ার্ড-২০২১’ পুরস্কারে ভূষিত :প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে তিনটি দেশ থেকে করোনার ৬৮ লাখ ডোজ টিকা আসছে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে বাংলাদেশ নেতৃত্ব দেবে : সজিব ওয়াজেদ জয় ‘সৃজনশীল অর্থনীতিতে’ অবদানের স্বীকৃতি দেয়ার জন্য ইউনেস্কোর সাথে একটি বৈশ্বিক পুরস্কার চালু নিজস্ব তহবিলে ক্লাইমেট ট্রাস্ট ফান্ড গঠন করেছে বাংলাদেশ ASOCIO LEADERSHIP AWARD-2021’ পেয়েছেন আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় সাজাপ্রাপ্ত এবং নেতৃত্ব শূন্য- এই বিএনপিকে মানুষ কেন ভোট দেবে? বাংলাদেশ ও ফ্রান্স আর্থিক সহায়তা ও প্রযুক্তিগত সহযোগিতা সংক্রান্ত তিনটি চুক্তি স্বাক্ষর শিক্ষণ ও অনলাইন শিক্ষায় সবার সমান সুযোগ নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের দ্রুত মিয়ানমারে ফেরাতে না পারলে বাংলাদেশ থেকে নিরাপত্তা ঝুঁকি বিশ্বে ছড়িয়ে পড়তে পারে ইউনেস্কো-বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেল ‘মোটিভ ক্রিয়েশন্স’ তারুণ্যের বাংলাদেশ যুবলীগের ৪৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ

শহীদ নূর হোসেন দিবস আজ- গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন-সংগ্রামে এক অবিস্মরণীয় দিন

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ১০ নভেম্বর, ২০২১
  • ৪৩ Time View

 

আজ ১০ নভেম্বর, শহীদ নূর হোসেন দিবস। বাংলাদেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন-সংগ্রামে এক অবিস্মরণীয় দিন। ১৯৮৭ সালের এই দিনে এরশাদ সরকারবিরোধী আন্দোলন চলাকালে গুলিবিদ্ধ হয়ে শহীদ হন নূর হোসেন। এদিন হাজারও প্রতিবাদী যুবকের সঙ্গে জীবন্ত পোস্টার হয়ে রাজপথে নেমে এসেছিলেন যুবলীগ কর্মী নূর হোসেন। তার বুকে-পিঠে উৎকীর্ণ ছিল ‘গণতন্ত্র মুক্তি পাক, স্বৈরাচার নিপাত যাক’-এই জ্বলন্ত স্লোগান।

সেদিনের গুলিতে আরও শহীদ হন যুবলীগ নেতা নুরুল হুদা বাবুল ও কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরের ক্ষেতমজুর নেতা আমিনুল হুদা টিটোও।

এই হত্যাকাণ্ডের প্রতিক্রিয়াস্বরূপ বিরোধী দলগুলো ওই বছরের ১১ ও ১২ নভেম্বর সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ঘোষণা করে। গণতন্ত্রকামী মানুষ বিক্ষোভে ফেটে পড়েন, ফলে স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন আরও গতি পায়। এই আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় ১৯৯০ সালের ৬ ডিসেম্বর জেনারেল এরশাদ পদত্যাগ করেন। এর মধ্য দিয়ে এরশাদের ৯ বছরের শাসনের অবসান ঘটে, পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হয় গণতন্ত্র।

নূর হোসেনের জন্ম ১৯৬১ সালে। পৈতৃক বাড়ি পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলার ঝাটিবুনিয়া গ্রামে। ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের পর তার পরিবার স্থান পরিবর্তন করে ঢাকার ৭৯/১ বনগ্রাম রোডে আসে। বাবা মুজিবুর রহমান ছিলেন পেশায় আটোরিকশাচালক। তার মায়ের নাম মরিয়ম বিবি। আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ার পর নূর হোসেন পড়াশোনা বন্ধ করে মোটরচালক হিসেবে প্রশিক্ষণ নেন।

এরশাদের পদত্যাগের পর বাংলাদেশে দুটি হ্যাঁ-না ভোটের মধ্য দিয়ে নির্বাচনকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার এবং প্রধানমন্ত্রী শাসিত সরকার ব্যবস্থা চালু হয়। জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়, এতে খালেদা জিয়া বাংলাদেশের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। এর এক বছর পর সরকারের পক্ষ থেকে নূর হোসেনের মৃত্যুর দিনটি সরকারিভাবে উদযাপনে উদ্যোগ নেওয়া হয়।

দিনটিকে প্রথমে ঐতিহাসিক ১০ নভেম্বর দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হলেও আওয়ামী লীগ এটিকে শহীদ নূর হোসেন দিবস করার জন্য সমর্থন দেয় এবং এই নামটি এখন পর্যন্ত বহাল রয়েছে। ১৯৯৬ সালে এরশাদ, নূর হোসেনের মৃত্যুর জন্য জাতীয় সংসদে আনুষ্ঠানিক ক্ষমা প্রার্থনা করেন। তার দল জাতীয় পার্টি এখন ১০ নভেম্বরকে গণতন্ত্র দিবস হিসেবে পালন করে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এক বিবৃতিতে শহীদ নূর হোসেন দিবস যথাযথ মর্যাদার সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পালনে আওয়ামী লীগের সব সহযোগী সংগঠনসমূহের নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রীয় সম্মান
নূর হোসেনের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তার নামে স্মারক ডাকটিকিট প্রকাশ করা হয়েছে। এছাড়া তিনি যে স্থানে পুলিশের গুলিতে নিহত হন, তার নামানুসারে সেই জিরো পয়েন্টের নামকরণ করা হয়েছে নূর হোসেন স্কয়ার। ১০ নভেম্বর তার মৃত্যুর কিছু সময় আগে তোলা তার গায়ে লেখাযুক্ত আন্দোলনরত অবস্থার ছবিটি বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক আন্দোলনের এক গুরুত্বপূর্ণ প্রতীক হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + 12 =

More News Of This Category

Categories

© All rights reserved © 2018 - 21.  LatestNews BICTL.

(ictlbd.org and  bd-tjprotidin.com উন্নয়ন প্রচারের অঙ্গিকার) --------------------------------------------------★★★-------------------------------------   বিঃদ্রঃ এই ওয়েবসাইট এর কোনো তথ্য ও ছবি হুবহু কপি করা সম্পূর্ন নিষেধ। ( N.T.B: copyrights not allowed)
ডিজাইন ও ডেভলাপ : মোস্তাকিম জনি